Home Sports লক্ষ্য আরও একবার শিরোপা জয়ের চেষ্টা; আর্জেন্টিনা দলে ফিরলেন মেসি-ডি মারিয়া

লক্ষ্য আরও একবার শিরোপা জয়ের চেষ্টা; আর্জেন্টিনা দলে ফিরলেন মেসি-ডি মারিয়া

2785
0
ছবিঃ সংগ্রহীত

দীর্ঘ বিরতি শেষে আর্জেন্টিনা জাতীয় দলে ফিরেছেন লিওনেল মেসি এবং দলে জায়গা না পাওয়া পরীক্ষিত মিডফিল্ডার অ্যাঞ্জেল ডি মারিয়ারও। এ মাসে হতে যাওয়া ভেনেজুয়েলা ও মরক্কোর বিপক্ষে দুটি প্রীতি ম্যাচের জন্য বার্সেলোনা তারকাকে নিয়ে দল ঘোষণা করেছেন কোচ লিওনেল স্কালোনি।

প্রায় ৮ মাস পর আলবিসেলেস্তেদের হয়ে খেলতে দলে ফিরেছেন এ দুই তারকা ফুটবলারই। চলতি মাসের শেষ দিকে মরক্কো এবং ভেনিজুয়েলার বিপক্ষে দুইটি প্রীতি ম্যাচ খেলবে আর্জেন্টিনা। সে ম্যাচের জন্য ৩১ সদস্যের প্রাথমিক দল ঘোষণা করেছেন আর্জেন্টিনার কোচ লিওনেল স্কালোনি। যেখানে পূর্ব নির্ধারিতভাবেই ফিরেছেন মেসি, সঙ্গে নেয়া হয়েছে ডি মারিয়াকেও।

তবে আরেক তারকা ফুটবলার ম্যানচেস্টার সিটির হয়ে দুর্দান্ত খেলতে থাকা ফরোয়ার্ড সার্জিও আগুয়েরোকে স্কোয়াডে রাখেননি স্কালোনি। ৩০ বছর বয়সী এ স্ট্রাইকারকে না রাখার ব্যাখ্যায় আর্জেন্টাইন কোচ বলেন, ‘তার সঙ্গে আমার কখনও কোনো মতানৈক্য হয়নি। সে খুব ভালো খেলোয়াড়। তাকে পরখ করার কিছু নেই, অন্য খেলোয়াড়দেরকে আমার দেখতে হবে।

আগামী জুন-জুলাইয়ে হতে যাওয়া কোপা আমেরিকার আগে মেসির ফেরাটা আর্জেন্টিনার জন্য দারুণ এক সুখবর। গত বিশ্বকাপে নিজের নামের প্রতি সুবিচার করতে পারেননি সময়ের অন্যতম সেরা ফুটবলার। করেছিলেন মাত্র একটি গোল। তবে বরাবরের মতো বার্সেলোনার জার্সিতে  চলতি মৌসুমে দুর্দান্ত ছন্দে আছেন তিনি। সব প্রতিযোগিতা মিলিয়ে করেছেন ৩৩ গোল।

সংবাদ সম্মেলনে মেসির ফেরা প্রসঙ্গে স্কালোনি বলেন, “মেসিকে ডাকা হয়েছে। সে একটি নাকি দুটি ম্যাচ খেলবে, এ বিষয়ে আমরা সিদ্ধান্ত নিব। (বার্সেলোনার হয়ে) সে অনেক ম্যাচ খেলছে এবং মৌসুমের এ সময়ে খেলোয়াড়রা ক্লান্ত থাকে এবং আন্তর্জাতিক সূচিতে বিশ্রাম নেয়। কিন্তু মেসি আসতে চেয়েছে আর এটা খুব গুরুত্বপূর্ণ একটা পদক্ষেপ। মেসি কতখানি খেলবে সে বিষয়ে আমি সিদ্ধান্ত নিব, অন্য কেউ নয়। আমি এখনও জানি না।”

“বিশ্বকাপে যা হয়েছিল তা আমাদের জন্য একটা ধাক্কা, মেসির জন্যও তাই। তবে এখন সে ফিরতে মরিয়া।“

২০১৪ বিশ্বকাপের ফাইনাল ও পরের দুই বছরে কোপা আমেরিকার ফাইনালে উঠেছিল আর্জেন্টিনা। কিন্তু কোনোবারই শিরোপা জিততে পারেনি তারা।

এ প্রসঙ্গে স্কালোনি বলেন, “অবশ্যই আমাদের দলে বিশ্বের সেরা খেলোয়াড় আছে। কিন্তু যেকোনো কারণেই হোক আমরা ভালো করতে পারিনি।”

“আমরা তার সঙ্গে তিনটি ফাইনালে উঠেছি। শিরোপার খুব কাছাকাছি এসেছিলাম আমরা। জয় ও হারের মাঝে খুব সুক্ষ্ম একটা পার্থক্য আছে। আমার মনে হয়, আমরা মেসির সর্বোচ্চটা কাজে লাগিয়েছি আর আর্জেন্টিনা যদি একটা ম্যাচ জিততো তাহলে গল্পটা ভিন্ন হতো।”

সাম্প্রতিক সময়ে ম্যানচেস্টার সিটির হয়ে বেশ ভালো ছন্দে আছেন আগুয়েরো। তারপরও তাকে দলে না রাখাটা কিছুটা বিস্ময় জাগিয়েছে। তবে ৩০ বছর বয়সী এই স্ট্রাইকারের সঙ্গে তার কোনো সমস্যা নেই বলে জানিয়েছেন স্কালোনি।

“আগুয়েরোর সঙ্গে আমার সম্পর্ক দারুণ। তার সঙ্গে আমার কখনও কোনো মতানৈক্য হয়নি। সে খুব ভালো খেলোয়াড়। তাকে পরখ করার কিছু নেই, অন্য খেলোয়াড়দেরকে আমার দেখতে হবে।”

আগামী ২২ মার্চ আতলেতিকো মাদ্রিদের মাঠ ওয়ান্দা মেত্রোপলিতানোতে ভেনেজুয়েলার বিপক্ষে খেলবে আর্জেন্টিনা। এর চার দিন পর মরক্কোর বিপক্ষে মাঠে নামবে দুবারের বিশ্ব চ্যাম্পিয়নরা।

আর্জেন্টিনা দল:
গোলরক্ষক: আগুস্তিন মার্চেসিন (ক্লাব আমেরিকা), হুয়ান মুসো (উদিনেসে),এস্তেবান আন্দ্রাদা (বোকা জুনিয়র্স), ফ্রাঙ্কো আরমানি (রিভার প্লেট)। ডিফেন্ডার: হেরমান পেজ্জালা (ফিওরেন্তিনা), গাব্রিয়েল মের্কাদো (সেভিয়া), হুয়ান ফয়েথ (টটেনহ্যাম), নিকোলাস ওতামেন্দি (ম্যানচেস্টার সিটি),ওয়াল্টার কানেমান (গ্রেমিও), নিকোলাস তাগলিয়াফিকো (আয়াক্স), মার্কোস অ্যাকুনা (স্পোর্টিং লিসবন), গঞ্জালো মনতিয়েল (রিভার প্লেট), রেনজো সারাভিয়া (রেসিং ক্লাব), লিসান্দ্রো মার্টিনেজ (ডিফেন্সা হুস্তিসিয়া) । মিডফিল্ডার: লেয়ান্দ্রো পারেদেজ (পিএসজি), গুইদো রদ্রিগেজ (আমেরিকা), জিওভান্নি লো চেলসো (রিয়াল বেটিস), মানুয়েল লানজিনি (ওয়েস্ট হ্যাম ইউনাইটেড), রবার্তো পেরেইরা (ওয়াটফোর্ড), আঙ্গেল দি মারিয়া (পিএসজি), মাতিয়াস জারাক্কো (রেসিং ক্লাব), আইভান মার্কোনে (বোকা জুনিয়র্স), ডোমিঙ্গো ব্লাঙ্কো (ডিফেন্সা হুস্তিসিয়া), রদ্রিগো দে পল (উদিনেজে)। ফরোয়ার্ড: লিওনেল মেসি (বার্সেলোনা), গঞ্জালো মার্টিনেজ (আটলান্টা ইউনাইটেড), অ্যাঙ্গেল কোরেয়া (অ্যাটলেটিকো মাদ্রিদ), পাওলো দিবালা (জুভেন্টাস), দারিও বেনেদেত্তো (বোকা জুনিয়র্স), লাউতারো মার্টিনেজ (ইন্টার মিলান), মাতিয়াস সুয়ারেজ (রিভার প্লেট)।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here