Home Lifestyle রক্ত প্রদানের পূর্বে যে বিষয় গুলো আপনার জানা প্রয়োজন!

রক্ত প্রদানের পূর্বে যে বিষয় গুলো আপনার জানা প্রয়োজন!

235
0
ছবি সংগৃহীত

কেবল রক্তের প্রয়োজন হলেই মানুষের জীবন বাঁচাতে রক্ত যে কত মূল্যবান তা বোঝা যায় । আপনার জীবন বাঁচাতে পারে এক ব্যাগ রক্ত । তবে রক্তের সম্পর্ক থাকলেই যে কেউ রক্ত দেবে তা কিন্তু নয়। বর্তমানে অনেকেই রক্তদান করে থাকেন।অনেকের জীবন বাঁচাতেও রক্ত দিতে এগিয়ে আসেন অনেকে,বিশেষ করে তরুণরা খুব আগ্রহ নিয়ে অপরিচিতদেরকেও রক্ত দিয়ে থাকেন।

বিশেষজ্ঞদের মতে,রক্তদানের ফলে রক্তদাতার শারীরিক কোনো ক্ষতি হয় না। কেননা রক্তের লোহিত কণিকার আয়ু ১২০ দিন। রক্ত দিন বা না দিন ১২০ দিন পর লোহিত কণিকা আপনা আপনিই মরে যায়। সেখানে জায়গা করে নেয় নতুন লোহিত কণিকা। সুস্থ একজন মানুষ প্রতি চার মাস অন্তর রক্ত দিতে পারেন।

রক্ত দেয়ার আগে যে বিষয়গুলো জেনে নেয়া প্রয়োজন তা হল রক্তদাতাকে অবশ্যই শারীরিকভাবে সুস্থ থাকতে হবে। যদি কোনো ব্যক্তি সুস্থ না থাকেন তিনি রক্ত দিতে পারবেন না। রক্তদাতার বয়স কমপক্ষে ১৮ বছর হতে হবে,আঠারো বয়সের নিচে কেউ রক্ত দিতে পারবেন না। অন্যদিকে ওজন হতে হবে কমপক্ষে ১১০ পাউন্ড।

নিম্নরক্ত চাপের সমস্যা রয়েছে এমন ব্যক্তি রক্তদান করতে পারবেন না। খুব বেশি বা খুব কম রক্তচাপ কোনটিই রক্তদানের ক্ষেত্রে সহায়ক নয়।অ্যান্টিবায়োটিক সেবনরত অবস্থায় থাকলে সেক্ষেত্রে রক্তদান করা উচিত নয়। কেননা রক্তদান করলে তিনি শারীরিকভাবে ক্ষতির সম্মুখীন হবেন।

গর্ভাবস্থা বা মাসিক চলাকালীন সময়ে কোনো নারী রক্তদান করতে পারবেন না।এ সময় শরীর থেকে রক্ত প্রবাহিত হয় শরীরে বিভিন্ন সমস্যা দেখা দিতে পারে। সড়ক দুর্ঘটনা রক্তদানের কাছাকাছি সময়ে কোনও বড় দুর্ঘটনা বা অস্ত্রোপচার হয়ে থাকলে রক্তদান না করা বাঞ্ছনীয় কারণ আপনি শরীরিকভাবে রক্ত দেয়ার জন্য সক্ষম নন।

রক্তের হিমোগ্লোবিন ১১-এর নিচে হলে রক্ত দেওয়া ঠিক নয়। এর ফলে হার্টবিট বেড়ে যাওয়া,ক্লান্ত লাগা,চোখে ঝাঁপসা দেখা,মাথা ঘোরাসহ অজ্ঞানও হয়ে যেতে পারেন।এছাড়াও খেয়াল রাখতে হবে যে এক ব্যাগ রক্তদানের পর কিছুক্ষণ বিশ্রাম নেয়া দরকার।রক্তদানের পর দুই গ্লাস পানি বা জুস খেলে রক্তের জলীয় অংশটুকু পূরণ হয়ে যায়।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here