web analytics
Bangladesh

মোংলায় মেয়র’সহ ১৩ কাউন্সিলর প্রার্থীর ভোট-বর্জন

নিউজ ডেক্স: ভোট-কারচুপি ও কেন্দ্র দখলের অভিযোগ এনে মোংলা পোর্ট পৌরসভার নির্বাচনে বিএনপি মনেনীত প্রার্থী মোঃ জুলফিকার আলী ভোট বর্জন করেছেন। ১৬ জানুয়ারি সকাল সাড়ে দশটায় শহরের মাদরাসা রোডস্থ নিজ বাসভবনের নির্বাচনী-অফিস সংবাদ সম্মেলন করে তিনি নির্বাচন-বর্জনের ঘোষণা দেন।

সংবাদ সম্মেলনে তিনি অভিযোগ করেন, ক্ষমতাসীন-দলের নেতাকর্মীদের চাপে সাধারণ ভোট কেন্দ্রে যেতে পারছেন না। বাঁধা-পেরিয়ে কেউ কেউ যেতে পারলেও সরকারি দলের নিয়োগকৃত ক্যাডারদের সামনে তাদের পছন্দের প্রতীকে ভোট দিতে বাধ্য-করা হচ্ছে। এভাবে কোন সভ্য দেশে নির্বাচন হতে পারে না। আমি নিজে কয়েকটি কেন্দ্র এমনি লজ্জাষ্কর ভোট ডাকাতির-চিত্র দেখেছি। একই’সাথে বিএনপি সমর্থিত ১২জন কাউন্সিলর ও সতন্ত্র ২ জন কাউন্সিলর প্রার্থী ভোট-বর্জনের ঘোষণা দিয়েছেন।

বর্জন-করা কাউন্সিলররা হলেন,  ১-নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর-প্রার্থী হাবিব ফকির, মাইনুল ইসলাম,  ২-নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর-প্রার্থী ইমান হোসেন,  ৩-নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর প্রার্থী সুমন মল্লিক, ইউনুস আলী,  ৪-নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর-প্রার্থী আব্দুর রাজ্জাক, ৫নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর প্রার্থী এমরান হোসেন, ৬-নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর-প্রার্থী এ্যাড. মোঃ হোসেন, ৭-নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর প্রার্থী মোঃ আলাউদ্দীন, ৮-নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর-প্রার্থী মোঃ খোরশেদ আলম,  ৯-নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর-প্রার্থী এম.এ কাদের, সংরক্ষিত ১, ২,৩-নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর-প্রার্থী কমলা বেগম,, ৪৫,৬-নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর-প্রার্থী লিলি বেগম, ৭, ৮,৯-নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর-প্রার্থী আয়শা বেগম।

এই বিষয়ে কাউন্সিলরা বলেন, শুধু মেয়র প্রার্থীর ভোটার সমর্থক নয়, কাউন্সিলর প্রার্থীর সমর্থক ও ভোটারদেরকেও কেন্দ্র থেকে বের-করে দেওয়া হয়েছে। আমাদের সমর্থকদেরও মার’ধর করেছে আওয়ামী সমর্থিত কাউন্সিলর প্রার্থী ও দলীয়-নেতাকর্মীরা।

মোংলা উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা আব্দুল্লাহ আল মামুন বলেন, নির্বাচন-বর্জনের বিষয়টি আমরা এখনও জানিনা। তনে যেসব স্থানে ঝামেলার-কথা জেনেছি সেসব জায়গায় আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর-সদস্যদের সহায়তায় সুষ্ঠ-পরিবেশ ফিরিয়ে আনা হয়েছে।

Related Articles

Back to top button
Close
Close