web analytics
Pasmisali

মুরগির দন্ড হল: অপরাধ ধানের চারা খাওয়া

কুড়িগ্রামের একটি এলাকায় ধানের চারা খাওয়ার অপরাধে দুটি মুরগির জরিমানা করা হয়েছে। ধানের মালিক দাবি করেছে, নির্দিষ্ট পরিমাণ টাকা দিয়ে মুরগি দুটোকে ছাড়িয়ে আনতে হবে মুরগির মালিককে। কুড়িগ্রাম জেলার নাগেশ্বরী উপজেলার কেদার ইউনিয়নের গোলের হাট গ্রামে এ ঘটনা ঘটেছে।

৩০ জুলাই (মঙ্গলবার) স্থানীয় একটি খোয়াড়ে সকাল থেকে আটক রাখা হয় মুরগি দুটিকে।

স্থানীয় কৃষক ক্বারি মাহাবুবুর রহমান বলেন, বন্যায় নষ্ট হয়ে যাওয়া আমন ধানের বীজতলা আবার গজাতে শুরু করেছে। এদিকে গ্রামের সব মুরগি এসে কচি কচি চারা ধানগুলো খেয়ে ফেল অনেক ক্ষতি করেছে তার। যাদের মুরগি তাদের অনেকবার নিষেধ করা হয়েছে। সাবধান করে দেয়া হযয়েছিলো বাড়ি বাড়ি গিয়ে। তার পরও কাজ না হওয়ায় সকালে দুটি মুরগি ধরে স্থানীয় গবাদিপশুর খোয়াড়ে দিয়েছি। এতে আমি কোনো অপরাধ করিনি। আমি আমার ফসল রক্ষায় বাধ্য হয়ে এ কাজ করেছি ‘।

খোয়াড়ের মালিক ইব্রাহিম জানান, ‘বীজতলার ধান খাওয়ার অপরাধে দুটি মুরগি খোয়াড়ে দিয়েছেন ক্বারি মাহাবুবুর রহমান। তবে মুরগি দুটির মালিক কে বা কার তা জানা যায়নি।’

গবাদি পশু-পাখি দ্বারা ফসলের ক্ষতি করলে ক্ষতিগ্রস্ত মালিক খোয়াড়ে দিতে পারেন। আর্থিক জরিমানা বা দণ্ড দিয়ে পশু-পাখির মালিক তা ছাড়িয়ে নিয়ে যায়। মুরগির মালিক যেই হোক না কেন,তাকে জরিমানা বাবদ দুটি মুরগির জন্য ৬০ টাকা দিতে হবে।

খোয়াড়ের মালিক বলেন, ‘আমার ৪০ বছরের খোয়াড় চালানোর ইতিহাসে এবারই প্রথম কেউ মুরগি খোয়াড়ে দিল। তবে দিন যত যাবে খাওয়ার খরচ দিতে হবে।’

Tags

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button
Close
Close