Home Pasmisali বজ্রপাতের সময় কি করা উচিত!

বজ্রপাতের সময় কি করা উচিত!

259
0
ছবি সংগৃহীত

সর্বশেষ দশ বছরে দেশে বজ্রপাতে মৃত্যু হয়েছে প্রায় দুই হাজার মানুষের। বাংলাদেশের প্রাকৃতিক দুর্যোগ গুলোর মধ্যে গেলো কয়েক বছরে এই প্রাকৃতিক দুর্যোগে মৃত্যুর হার সবচেয়ে বেশী। তবে বিশেষজ্ঞদের ধারণা সচেতনতা বাড়ানোর পাশপাশি কিছু নিয়ম কানুন মানলেই বজ্রপাতে মৃত্যুর ঝুঁকি কমানো সম্ভব হবে।

আকাশ একটু মেঘ দেখা দিলে পূর্বের চেয়ে অনেক বেশি বজ্রপাত হয়। ঝড়ের সঙ্গে বজ্রপাতে দেশের কোথাও না কোথাও প্রায় দিনই মারা যাচ্ছেন সাধারণ মানুষ। সবচেয়ে বেশি মানুষ মারা যায় ২০১৬ সালে,এসময় বজ্রপাতে মারা গেছেন ২২০ জন।

আবহাওয়া অফিস বলছে বছরে মার্চ, এপ্রিল এবং মে এই তিন মাসে বজ্রপাত সবচেয়ে বেশি হয়। যদিও প্রতিনিয়ত আবহাওয়া অফিস থেকে পুর্বাভাসও দেয়া হচ্ছে।

আবহাওয়াবিদ আরিফ হোসেন বলেন,বজ্রপাতের সময় কিছু নিয়ম মানলে মৃত্যুঝুঁকি অনেকাংশেই কমানো সম্ভব। তিনি বলেন,‘যারা কাজে কর্মে বিভিন্ন স্থানে থাকেন তাদের দরকার আবহাওয়ার সতর্কতা তথ্যগুলো জেনে রাখা।’

অন্যদিকে প্রাচ্যের অক্সফোর্ড ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের পদার্থ বিজ্ঞান বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক ড. আলমগীর কবির মনে করছেন, সচেতনতাই পারে মৃত্যু খুঁকি কমাতে।

এবার চলুন জেনে নেওয়া যাক বজ্রপাতের সময় কি কি করতে হবে আর কি করা যাবেনা

# বজ্রপাতের সময় কোন উঁচু গাছ বা ধাতব টাওয়ারের নিচে বা সংস্পর্শে থাকা যাবেনা। থাকতে হবে অন্তত ৪ মিটার বা আরও বেশি দূরত্বে।

# মাঠে থাকলে মাটিতে শুয়ে পড়া যাবেনা। হাঁটু গেড়ে যতটা সম্ভব দুই পায়ের পাতা উঁচু করে রাখতে হবে। পায়ে রাবারের স্যান্ডেল থাকলে আপনি বেশি নিরাপদ।

# এসময় পানিতে থাকা যাবেনা। নৌকায় থাকলে শুয়ে পড়তে হবে। খেয়াল রাখতে হবে যেন অন্য কিছুর থেকে নিজের উচ্চতা বেশি না হয়।

# যদি আপনি গাড়ির মধ্যে থাকেন,গাড়ীর দেয়াল বা ধাতব সংস্পর্শে থাকা যাবেনা।

# ঘরের মধ্যে অবস্থান নেয়া সবচেয়ে নিরাপদ। টিভি অ্যান্টেনার তার বা বাইরের সঙ্গে সংযুক্ত এমন কিছুর সংস্পর্শে থাকা যাবেনা।

# ঝড় শেষ হওয়ার পর অন্তত ত্রিশ মিনিট বাইরে না থাকা নিরাপদ।

মার্চ থেকে এপ্রিল মাস পর্যন্ত উত্তর ও পশ্চিম এবং উত্তর-পশ্চিমে মেঘ থাকলে সাবধানতা অবলম্বন করা জরুরী।

আপনি ইচ্ছা করলে  টোল ফ্রি নম্বর ১০৯০ তে ফোন করে আবহাওয়ার পূর্বাভাস জেনে নিতে পারেন ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here