Home Technology নিল আর্মস্ট্রংয়ের চন্দ্রাভিযানের পোশাক রক্ষায় বিশেষ প্রক্রিয়া

নিল আর্মস্ট্রংয়ের চন্দ্রাভিযানের পোশাক রক্ষায় বিশেষ প্রক্রিয়া

147
0
সংগ্রহীত ছবি

প্রায় এক দশক ধরে বিশেষ প্রক্রিয়ায় সংরক্ষণের পর ২০১৫ সালে নীল আর্মস্ট্রং এর ঐতিহাসিক চন্দ্রাভিযানের পোশাকটি পুরোনো হওয়া থেকে রক্ষার উদ্যোগ নেয় “স্মিথসোনিয়ান এয়ার এন্ড স্পেস মিউজিয়াম”। প্রায় ৫০০ হাজার ডলার ব্যয়ে দীর্ঘ গবেষণা ও তথ্য সংগ্রহ ও সংরক্ষণ প্রক্রিয়ার পর প্রতিষ্ঠানটির পক্ষ থেকে পুরো প্রক্রিয়া শেষ করার ঘোষণা আসে। চন্দ্রাভিযানের বর্ষপূর্তি আগামী ১৬ জুলাই এটি জনসম্মুক্ষে প্রদর্শনের জন্য খুলে দেয়া হবে।

এটাই সেই পোশাক যা পরিধান করে ৫০ বছর আগে নীল আমস্ট্রং চন্দ্রাভিযানের মতো বিখ্যাত কাজটি করেছিলেন। কিন্তু প্রায় এক দশক ধরে সংরক্ষিত স্থানে রাখার পর নতুন ভাবনায় পড়ে সংরক্ষণকারী কর্তৃপক্ষ।

স্মিথসোনিয়ান এয়ার এন্ড স্পেস জাদুঘরের সংরক্ষণকারীরা ইতিহাসের এই গুরুত্বপূর্ণ অনুষঙ্গটি রক্ষার প্রয়োজনীয়তা অনুভব করেন। যা করতে তারা একটি কিকস্টার্টার প্রকল্প শুরু করেছিলেন। যার নাম ‘রিভ্যুক দ্যা স্যুট’। যে প্রকল্পের মাধ্যমে হাজার হাজার মানুষ অর্থ সাহায্য নিয়ে এগিয়ে আসেন। যা সংরক্ষণকারীদের গবেষণা, তথ্য সংগ্রহ ও স্পেস স্যুটটি সংরক্ষণের সুযোগ তৈরি করে দেয়।

আর চলতি সপ্তাহে জাদুঘরে এর সংরক্ষন সম্পন্ন হয়েছে ঘোষণার মধ্য দিয়ে পোশাকটি দ্বিতীয়বারের মতো জনসম্মুখে আসার সুযোগ তৈরি হয়েছে। প্রফেসর জেমস হেনসন নীলের অফিশিয়াল বায়োগ্রাফার। এই গবেষণার ফলে আর্মস্ট্রং এর অ্যাপোলো ১১ এর এই স্যুট্টি ১৩ বছর পর জনসম্মুখে প্রদর্শনের ব্যবস্থা করা হবে চন্দ্রাভিযানের বর্ষপূর্তির দিন থেকে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here