web analytics
BangladeshUpdate News

দাবি না মানলে কঠোর কর্মসূচির ঘোষনা (জাবি) শিক্ষার্থীরা

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের পরীক্ষা স্থগিতের সিদ্ধান্ত প্রত্যাহার করে চলমান পরীক্ষা নেয়ার দাবিতে আন্দোলন করেছে জাতীয়-বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা। আন্দোলন চলাকালে অন্তত ১৪ জনের অধিক শিক্ষার্থীকে-ধরে নিয়ে যাওয়া হয়েছে বলে জানা গেছে। বৃহস্প্রতিবার (২৫ ফেব্রুয়ারি) সকালে থেকে আন্দোলন করার পর বিকাল দুই’টার দিকে তারা তাদের আন্দোলন স্থগিত করে। এ’সময় তারা জানিয়েছে, তাদের দাবি মনে নেওয়া না হলে রবিবার সারাদেশে কঠোর-আন্দোলন গড়ে তুলা হবে। 

এই বিষয়ে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী আবিদ হুসাইন বলেন, আমাদের দাবি মেনে নেয়া না হলে রোববার সারাদেশে আন্দোলন গড়ে তুলা হবে। এ’সময় আন্দোলন চলাকালে যাদের ধরে-নিয়ে যাওয়া হয়েছে তাদের ছেড়ে দেওয়ার জন্য অনুরোধ জানান তিনি। জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের স্থগিত হওয়া পরীক্ষা সচলের দাবিতে বৃহস্প্রতিবার সকাল থেকে শিক্ষার্থীরা রাজধানীর শাহবাগ মোড়ে আন্দোলন করে। সকাল সাড়ে দশটার দিকে শিক্ষার্থী জড়ো হওয়ার চেষ্টা করে সেখান থেকে ১০জন আটক-করে নিয়ে যায় পুলিশ এবং শিক্ষার্থীদের ছত্র’ভঙ্গ করে দেওয়া হয়। 

পরে আন্দোলনররত শিক্ষার্থীরা ঢাকা-বিশ্ববিদ্যালয় টিএসসিতে জড়ো হয়ে মিছিল নিয়ে শাহবাগ থানার সামনে অবস্থান নেয়। সেখানে অবস্থানকালে অন্তত ৫ জনকে আটক করে পুলিশ এবং সেখান থেকে তাদের ছত্র’ভঙ্গ করে দেওয়া হয়। পরে তারা মিছিল নিয়ে বিশ্ববিদ্যালয় রাজুর-ভাস্কর্যে জামায়েত হওয়ার চেষ্টা করলে পুলিশ ও বিশ্ববিদ্যালয় প্রক্টরিয়াল টিম তাদের সেখানে দাড়াতে দেয়নি। তখন, আন্দোলনরত শিক্ষার্থীরা সেখান থেকে সড়ে গিয়ে তারা আজকের মতো তাদের আন্দোলন স্থগিতের ঘোষণা দেয়। 

এছাড়াও আন্দোলনরত শিক্ষার্থীদের ছেড়ে দেওয়া হবে বলে জানিয়েছে শাহবাগ থানা পুলিশ। শাহবাগ থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত-কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ মামুন অর রশীদ বলেন, শাহবাগ থেকে আমরা ১০-১২ জনকে জিজ্ঞাসা’বাদের জন্য পুলিশের হেফাজতে নিয়েছি। এদের মধ্যে ২/৩ জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের বাইরের। তাদের অভিভাবকদের খোঁজ নেয়া হয়েছে। তারা আসলেই আটক’কৃতদের ছেড়ে দেয়া হবে। 

Tags

Related Articles

Back to top button
Close
Close