web analytics
Lifestyle

ত্বকের সৌন্দর্য বাড়াতে গোলাপ

বিভিন্ন কবি সাহিত্যিকদের ভাষায় অনকে প্রাচীনকাল থেকেই গোলাপ ফুলের ব্যবহার হয়ে আসছে। গোলাপ যেন এক প্রেমের প্রতীক, এক সৌন্দর্যের প্রতীক। গোলাপ ফুল প্রেম নিবেদনের প্রতীক হিসেবে ব্যবহৃত হয়। কবি বা সাহিত্যিক তাদের লেখনীর মাধ্যমে গোলাপরে সৌন্দর্য ফুঁটিয়ে তোলেন। প্রাচীনকাল থেকেই রূপচর্চায় রুপচরচা গোলাপের ব্যবহার হচ্ছে। গোলাপ কাজ করে অ্যান্টি-অক্সিডেন্ট হিসেবে। এটি ত্বকের দাগ দূর করে, ত্বককে উজ্জ্বল করে তোলে। এবার চলুন জেনে নেওয়া যাক রূপচর্চায় গোলাপকে কি ভাবে কাজে লাগানো যায়—

ত্বকের জন্য প্যাক তৈরিঃ এক চা–চামচ গোলাপ পেস্ট এর সাথে এক চা চামচের চার ভাগের এক ভাগ মধুর সঙ্গে রাজমা গুঁড়া মিশিয়ে প্যাক তৈরি করুন। রাজমার পরিবর্তে ময়দা দিলেও হয় তবে রাজমাতে উপকারিতা বেশি পাওয়া যায়। ত্বক উজ্জ্বল হওয়ার জন্য গোলাপ পেস্টে, দুধ, মধু ও জাফরানের মিশ্রণ প্যাক হিসেবে ব্যবহার করতে পারেন এর ফলে দাগও কমে আসে। গোলাপ পেস্টে, দুধ, মধু ও জাফরানের মিশ্রণ প্যাক হিসেবে ব্যবহার করতে পারেন। এই প্যাক ব্যবহারে ত্বক উজ্জ্বল হয়। গোলাপ পেস্টে, ওট, দুধ এবং মধু মিশিয়েও প্যাক তৈরি করা যায়। সপ্তাহে এক দিন ফেসপ্যাক ব্যবহার করুন ১৫ মিনিট সময় নিয়ে তবে অতিরিক্ত ব্যবহার করা যাবে না।

প্রাকৃতিক ক্লিনজার হিসেবে গোলাপঃ প্রাকৃতিক ক্লিনজার হিসেবে গোলাপ পেস্ট ব্যবহার করতে পারেন। স্বাভাবকি ও শুষ্ক ত্বকের জন্য গোলাপ পেস্ট এবং দুধের মিশ্রণ তৈরি করুন। ত্বক তৈলাক্ত হলে দুধের পরিবর্তে ইয়োগার্ট ব্যবহার করা যায়। ক্লিনজারের মিশ্রণ তৈরির পর কাচের জারে করে এক সপ্তাহরে জন্য ফ্রিজে রেখে দিন। প্রতদিনি এই ক্লিনজার ত্বকে হালকা ম্যাসাজ করার পর পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। এভাবে প্রাকৃতিক ক্লিনজার হিসেবে গোলাপ কাজ করে।

ঠোঁটের উজ্জ্বলতা বাড়াতেঃ চিনি ও লেবুর রসের মিশ্রণ দিয়ে ঠোঁট হালকাভাবে স্ক্রাব করে নিন। দেখবেন এর ফলে ঠোঁটের মৃত চামড়া উঠে আসবে। এরপর গোলাপ পেস্ট মধুর মিশ্রণ ঠোঁটে লাগান। দশ মিনিট পর পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। এর জন্য লাল গোলাপ সবচেয়ে বেশি র্কাযকর। প্রতিদিন গোলাপ ও মধুর ব্যবহারে ঠোঁটে কালচে ভাব দূর হয়, গোলাপি আভা ফুটে ওঠ। তবে স্ক্রাবিং সপ্তাহে এক দিন করাই ভালো।

কনুইয়ের দাগ দূর করতেঃ কনুইয়ে দাগ থাকলে গোলাপ পেস্ট, অলিভ অয়েল, মধু ও লেবুর রসের মিশ্রণ সেই দাগের অংশে লাগয়িে নিন। দশ মিনিট অপেক্ষা করুন। এরপর চিনি দিয়ে স্ক্রাব করুন ৫ মিনিট। সপ্তাহে এভাবে দুই দিনের জন্য এই মিশ্রণ ব্যবহার করলে কনুইয়ের দাগ দূর হবে।

বডি স্ক্রাব-এ গোলাপঃ এক টেবিল চামচ গোলাপ পেস্ট, আধা কাপ টক দই, ২ টেবিল চামচ চালের গুঁড়া এবং এক চা–চামচ মধুর মিশ্রণ বডি স্ক্রাব হিসেবে ব্যবহার করতে পারেন। সপ্তাহে এক দিন বডি স্ক্রাব হিসেবে এটা ব্যবহার করতে পারেন।

আরো কিছু বিষয় জানা জরুরিঃ গোলাপের পেস্ট দিয়ে যেকোনো প্যাক তৈরির পর সাবান বা ফেসওয়াশ জাতীয় কিছু দিয়ে না ধুয়ে শুধু পানি দিয়ে তা ভালোভাবে ধুয়ে ফেলুন। তবে ধুয়ে ফেলার পর ময়েশ্চারাইজার লাগিয়ে নিতে পারনে। এটা মনে রাখা জরুরী যে কোনো রঙের গোলাপ দিয়েই প্যাক তৈরি করা যায়। তবে ঠোঁটে গোলাপী আভা আনতে লাল গোলাপ সবচেয়ে ভালো। আমদানি করা গোলাপ ফুল সংরক্ষণের জন্য রাসায়নিক পদার্থ যোগ করা থাকে। তাই এসব ফুলের পাপড়ি ব্যবহার না করে অর্গানিক গোলাপ ফুল ব্যবহার করাই ভালো। অন্যদিকে রাসায়নিকযুক্ত গোলাপ ফুল ব্যবহার করার ক্ষেত্রে পেস্ট করার আগে পরিস্কার পানিতে পাপড়ি গুলো ২০ মিনিটের জন্য ভিজিয়ে রাখুন।

 

Tags

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button
Close
Close