web analytics
international

ট্রাম্পের যুদ্ধক্ষমতা কমাতে বিল আনছে কংগ্রেস

ইরানের বিরুদ্ধে প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের যুদ্ধ ঘোষণার ক্ষমতা কমাতে শিগগিরই বিল আনবে মার্কিন কংগ্রেস।

চলতি সপ্তাহে এ বিষয়ে একটি প্রস্তাব আনা হবে বলে জানিয়েছেন কংগ্রেসের নিম্নকক্ষ প্রতিনিধি পরিষদের স্পিকার ন্যান্সি পেলোসি। খবর এএফপি ও রয়টার্সের।

ইরানি জেনারেল কাসেম সোলেমানি হত্যার পরিপ্রেক্ষিতে ওয়াশিংটন-তেহরান উত্তেজনার মধ্যে রোববার এক বিবৃতিতে তিনি বলেন, প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের যুদ্ধের ক্ষমতা সম্পর্কিত একটি বিল প্রতিনিধি পরিষদে উত্থাপন করা হবে এবং তা ভোটে দেয়া হবে।

এ প্রস্তাবে ইরানের বিরুদ্ধে প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের সামরিক শক্তি ব্যবহারের ক্ষমতা সীমিত করার কথা বলা হয়েছে। তবে কংগ্রেসকে বুড়ো আঙুল দেখিয়ে ট্রাম্প বলেছেন, কোনো হামলা বা যুদ্ধ ঘোষণার ক্ষেত্রে কংগ্রেসের কোনো অনুমতি ও অনুমোদনের প্রয়োজন নেই তার।

ন্যান্সি পেলোসি বলেন, এর আগে সিনেটর টিম কেইন একই রকম প্রস্তাব জমা দিয়েছেন সিনেটে। এবার যে প্রস্তাবটি আসছে তা একই রকম।

এতে কংগ্রেসের দীর্ঘদিনের তদারকির ক্ষেত্রে বলা হয়েছে, যদি আর কোনো কংগ্রেসনাল পদক্ষেপ না নেয়া হয়, তাহলে ইরানের বিরুদ্ধে প্রশাসনিক সামরিক শত্রুতা বন্ধ হতে হবে ৩০ দিনের মধ্যে।

এ প্রস্তাবটি সহজেই হয়তো ডেমোক্র্যাট নেতৃত্বাধীন প্রতিনিধি পরিষদে পাস হবে। কিন্তু সিনেটে তা পাস হওয়ার সম্ভাবনা ক্ষীণ। কারণ, সিনেটে সংখ্যাগরিষ্ঠ হল ট্রাম্পের রিপাবলিকানরা। তাদের বেশির ভাগই ইরান ইস্যুতে প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের পক্ষে সমর্থন দিয়েছেন।

ইরাক থেকে যুক্তরাষ্ট্রের এবং বিদেশি সেনাদের প্রত্যাহার চেয়ে ইরাকি পার্লামেন্টে প্রস্তাব পাস হওয়ার পর প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প কড়া জবাব দিয়েছেন। তিনি বলেছেন, মার্কিন সেনাদের প্রত্যাহার করা হলে ইরাকের বিরুদ্ধে ইরানের চেয়েও কড়া অবরোধ দেয়া হবে।

কিন্তু তার এমন হুমকি কোনো কাজের নয় বলে মন্তব্য করেছেন জার্মানির পররাষ্ট্রমন্ত্রী হেইকো মাস। তিনি বলেছেন, ইরাকের বিরুদ্ধে অবরোধের যে হুমকি দিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র তা কোনো সাহায্য করবে না। এক্ষেত্রে আলোচনার মাধ্যমে ওই দেশটিকে বুঝিয়ে আয়ত্তে আনতে হবে।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button
Close
Close