Home Pasmisali ছেলেধরা গুজবে হত্যায় সরকারি কঠোর হুঁশিয়ারি জারি

ছেলেধরা গুজবে হত্যায় সরকারি কঠোর হুঁশিয়ারি জারি

128
0
প্রতীকী ছবি

সরকারের পক্ষ থেকে কোনো সন্দেহজনক ঘটনা অথবা গুজবের ভিত্তিতে কোনো নিরীহ মানুষকে হত্যার বিরুদ্ধে কঠোর হুঁশিয়ারি জারি করা হয়েছে। যদি কেউ এ ধরনের ঘটনা ঘটায় তাহলে সেটা শাস্তিযোগ্য অপরাধ হবে বলে উল্লেখ করা হয়েছে।

সকলেই অবগত আছে সম্প্রতি ছেলেধরা সন্দেহে কয়েকটি গণপিটুনি ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতে সরকারের পক্ষ থেকে সোমবার সতর্কতা উচ্চারণ করে একটি বিবৃতি দেওয়া হয়েছে বলে জানিয়েছে বাংলাদেশ সংবাদ সংস্থা।

সরকারের পক্ষ থেকে বিবৃতিতে জানিয়েছে, ‘একটি স্বার্থান্বেষী মহল গুজব ছড়িয়ে ছেলেধরা সন্দেহে নিরীহ মানুষকে পিটিয়ে হতাহতের বিষয়টি সরকারের নজরে এসেছে। ভিত্তিহীন ও উদ্দেশ্য প্রণোদিত যে কোনো ধরনের গুজব ছড়ানো ও আইন নিজের হাতে তুলে নেওয়া দেশের প্রচলিত আইনের পরিপন্থী এবং গুরুতর দণ্ডনীয় অপরাধ।

কোনো বিষয়ে কাউকে সন্দেহজনক মনে হলে নিজের হাতে আইন তুলে না নিয়ে আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীকে জানাতে হবে এবং এ ধরনের পরিস্থিতিতে ৯৯৯ নম্বরে কল করে পুলিশের সহায়তা নেওয়ার পরামর্শ দেওয়া হয়েছে।’

এদিকে, দু’দিন আগে রাজধানী ঢাকা বাড্ডা এলকায় ছেলে ধরা সন্দেহে এক নারীকে পিটিয়ে মারার ঘটনায় পুলিশ চারজনকে আটক করেছে। আদালত তাদের তিনজনকে চারদিনের পুলিশ রিমান্ডে দিয়েছে। পুলিশ তাদের জিজ্ঞাসাবাদের জন্য দশ দিনের রিমান্ড আবেদন করলে ঢাকা মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট ধীমান চন্দ্র মন্ডল চারদিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন।

পুলিশ সদর দপ্তর থেকে স্কুল চত্বর ও পার্শ্ববর্তী এলাকায় সিসিটিভি ক্যামেরা স্থাপনের পরামর্শ দেওয়া হয়েছে। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমেও জনসচেতনতা সৃষ্টির আহ্বান জানিয়েছে সরকার।

এর আগে ২০ জুলাই পুলিশ সদর দপ্তর থেকে ছেলে ধরা গুজবের বিরুদ্ধে জনগণকে সতর্ক করে দিয়ে একটি বিবৃতি দেওয়া হয়। এতে বলা হয়, এ ধরনের গুজবের ঘটনায় সন্দেহভাজন কাউকে ধরে পুলিশের হাতে না দিয়ে পিটিয়ে হতাহত করা আইনের দৃষ্টিতে মারাত্মক অপরাধ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here