web analytics
Lifestyle

অতিরিক্ত রাগের স্বাস্থ্যঝুঁকি ও এটা কমানোর উপায়।

কথায় আছে রাগলেন তো ঠকলেন,মানুষের স্বাভাবিক অনুভূতির একটি গুরুত্বপূর্ণ অংশ রাগ ।বেশি রাগ একদিকে যেমন সম্পর্কের অবনতি ঘটায় অন্যদিকে শরীরের অবনতিও ঘটায়।অতিরিক্ত রেগে যাওয়া হার্ট অ্যাটাক ও স্ট্রোকের ঝুঁকি বাড়ায় এবং রোগপ্রতিরোধ ক্ষমতা কমে যায়।

বিশেষজ্ঞরা বলেন,যদি আপনি বুঝতে পারেন যেকোনো একটি বিষয়ে আপনার রাগ হচ্ছে, সঙ্গে সঙ্গে গভীরভাবে শ্বাস নেয়ার চেষ্টা করুন তারপর মনে মনে ১ থেকে ১০ পর্যন্ত গুনুন। দেখবেন কিছুক্ষণের জন্য হলেও মন অন্যদিকে যাবে। গভীর শ্বাস নেওয়ার একটি উপকারিতা হলো একটি মাথায় অক্সিজেনের পরিমাণ বৃদ্ধি করে ফলে শরীরের রক্ত চলাচল স্বাভাবিক হয়। পরবর্তীতে যখন আপনি শান্ত হবেন তখন বিষয়গুলো ঠান্ডা মাথায় এবং ভালোভাবে বিশ্লেষণ করবেন।

এছাড়াও আপনার রাগের মাত্রা যদি বেড়ে যায় তবে কিছু সময়ের জন্য অন্য চিন্তা করুন। কিছুক্ষণের জন্য নিজেকে সেখান থেকে পুরোপুরি বিচ্ছিন্ন করে ফেলুন। এর অর্থ বোঝায় আপনি সেখানে থেকেও নেই। তাতে কিছুক্ষণ পর দেখবেন এমনিই আপনার মাথা ঠাণ্ডা হয়ে গেছে।

প্রচন্ড রাগের মাথায় যদি আপনি শুয়ে পরেন তাহলে আপনার রাগ কমে যাবে। সর পরিবর্তে আপনি বসে রাগ কমাতে পারেন। কিছুক্ষণ বসলে আপনার রাগ এমনিতেই কমবে।

ঠান্ডা পানি রাগ কমানোর অন্যতম একটি মাধ্যম। ঠান্ডা পানি পান করার মাধ্যমে শরীরে এক রকমের প্রশান্তি ছড়িয়ে দেয় যা মনকে শান্ত করতে সাহায্য করে।অতিরিক্ত রাগ শরীরের জন্য খুবই খারাপ,এটা আপনার স্বাস্থ্য ঝুঁকি বাড়ায়।

Tags

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button
Close
Close